আস্ক প্রশ্নে আপনাকে স্বাগতম ! এটি একটি প্রশ্নোত্তর ভিত্তিক কমিউনিটি। এই সাইট সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন ...
66 বার প্রদর্শিত
"ইসলাম ধর্ম" বিভাগে করেছেন (7,782 পয়েন্ট) 444 1372 2446

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (1,666 পয়েন্ট) 33 253 866
মানুষের পরিচ্ছতা ও সৌন্দর্য এবং সুস্থতা ও কমনীয়তার নেয়ামত রক্ষায় ইসলামে অনেক গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। যার কারণে ইসলাম মানুষের শরীরের অবাঞ্ছিত লোম, নখ ইত্যাদি বিনা ওজরে চল্লিশ দিন পর কাটাকে মাকরূহ তাহরীমি বা গোনাহর কাজ বলেছে। এ মর্মে সাহাবী আনাস রাযি. বলেন, ﻭُﻗِّﺖَ ﻟَﻨَﺎ ﻓِﻲ ﻗَﺺِّ ﺍﻟﺸَّﺎﺭِﺏِ، ﻭَﺗَﻘْﻠِﻴﻢِ ﺍﻷَﻇْﻔَﺎﺭِ، ﻭَﻧَﺘْﻒِ ﺍﻹِﺑِﻂِ، ﻭَﺣَﻠْﻖِ ﺍﻟْﻌَﺎﻧَﺔِ، ﺃَﻥْ ﻻَ ﻧَﺘْﺮُﻙَ ﺃَﻛْﺜَﺮَ ﻣِﻦْ ﺃَﺭْﺑَﻌِﻴﻦَ ﻳَﻮْﻣﺎً . অর্থাৎ, গোঁফ ছোট রাখা , নখ কাঁটা, বগলের লোম উপড়িয়ে ফেলা এবং নাভীর নিচের লোম চেঁছে ফেলার জন্যে আমাদেরকে সময়সীমা নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছিল যেন, আমরা তা করতে চল্লিশ দিনের অধিক দেরী না করি। (মুসলিম ২৫৮) তবে যে বলা হয়, এই সময় অতিক্রম করলে ইবাদত কবুল হয়না ; এই কথা ঠিক নয়। আর রোজা ভঙ্গের সাথে চুল, নখ ও অবাঞ্ছিত লোম কাটার সাথে কোন সম্পর্ক নেই। রোযা নষ্ট হবার সম্পর্ক হল পানাহার ও সহবাসের সাথে।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি উত্তর
1 উত্তর
06 এপ্রিল 2018 "রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল
1 উত্তর

27,497 টি প্রশ্ন

29,279 টি উত্তর

3,122 টি মন্তব্য

2,369 জন সদস্য



আস্ক প্রশ্ন এমন একটি প্ল্যাটফর্ম, যেখানে কমিউনিটির এই প্ল্যাটফর্মের সদস্যের মাধ্যমে আপনার প্রশ্নের উত্তর বা সমস্যার সমাধান পেতে পারেন এবং আপনি অন্য জনের প্রশ্নের উত্তর বা সমস্যার সমাধান দিতে পারবেন। মূলত এটি বাংলা ভাষাভাষীদের জন্য একটি প্রশ্নোত্তর ভিত্তিক কমিউনিটি। বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার পাশাপাশি অনলাইনে উন্মুক্ত তথ্যভান্ডার গড়ে তোলা আমাদের লক্ষ্য।

  1. Nosib

    53 পয়েন্ট

    1 উত্তর

    0 প্রশ্ন

শীর্ষ বিশেষ সদস্য

1 টি পরীক্ষণ কার্যক্রম
...