আস্ক প্রশ্নে আপনাকে স্বাগতম ! এটি একটি প্রশ্নোত্তর ভিত্তিক কমিউনিটি। এই সাইট সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন ...
74 বার প্রদর্শিত
"অ্যান্ড্রয়েড" বিভাগে করেছেন (2,716 পয়েন্ট) 25 145 479
সম্পাদিত করেছেন

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (2,776 পয়েন্ট) 96 254 373

যেভাবে গুগল প্লে স্টোরে অ্যাপ অ্যাপ সাবমিট করবেন


সবার আগে আপনার যা লাগবে তা হচ্ছে একটা গুগল একাউণ্ট বা Gmail একাউণ্ট। গুগল ওয়ালেটের মাধ্যমে পে করার Credit card কার্ডে মিনিমাম ২৮ ডলার থাকতে হবে। 


প্রথমে এই https://play.google.com/apps/publish/ লিঙ্কে গিয়ে লগিন করুন। আগে গুগল একাউন্টে লগিন করা থাকলে আর লগিন করতে হবে না। সরাসরি নিচের মত পেইজে নিয়ে যাবেঃ



image



এখানে Agreement এ ক্লিক করে Continue to Payment এ ক্লিক করলে পরের পেইজে নিয়ে যাবে। এরপর আপনি নিচের মত একটা পপ আপ পাবেন। Start Now তে ক্লিক করুন। 



  image 


আরেকটা পেইজ খুলবে বা একই ট্যাবে নিচের মত একটা ফরম পাবেন। এখানেই আপনি কার্ড ইনফরমেশন গুলো যুক্ত করতে হবেঃ

image 


আপনি গুগল ওয়ালেটের মাধ্যমে ২৫ ডলার পে করার জন্য বলবে। তার জন্য গুগল ওয়ালেটে একটা কার্ড যুক্ত করতে হবে।

যে কোন কার্ড হলেই হবে, মাস্টারকার্ড, ভিসা কার্ড, অ্যামেরিকান এক্সপ্রেস ইত্যাদি। কারো যদি পেওনিয়ার মাস্টার কার্ড থাকে, তা দিয়েও কাজ হবে। নিজের কার্ড থাকতে হবে, এমন ও না। অন্য পরিচিত কারো কার্ড ও ব্যবহার করা যাবে।


কার্ড নাম্বার, কার্ডের মেয়াদ উত্তির্ণ তারিখ এবং ৩/৪ ডিজিটের কোড। এগুলো দেওয়ার পর Accept and Continue করলে আপনাকে গুগল প্লে ডেভেলপার কনসোলে নিয়ে যাবে। যেখানে আপনি অ্যাপ আপলোড করতে পারবেন। আপনার কার্ডে মিনিমাম ২৮ ডলার থাকতে হবে। গুগল ওয়ালেট একাউণ্ট খোলার সময় কার্ড ভেরিফিকেশনের জন্য ছোট ছোট দুইটা এমাউন্ট কেটে নেয় গুগল। পরে যে গুলো আবার আপনার কার্ডে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

পেমেন্ট কনফারমেশন এর জন্য ২৪ ঘন্টা সময় নেয়। যদিও আপনি পেমেন্ট করার পর পরই গুগল প্লে স্টোর ডেভেলপার কনসোলে অ্যাপ আপলোড করা শুরু করতে পারবেন।

আপনার কোন কার্ড না থাকলে ফ্রিতে পেওনিয়ারের মাসটার কার্ড আনতে পারেন। এবং তা ফ্রি। এখানে ক্লিক করে একাউণ্ট করলে তারা আপনার একাউন্টে কার্ড পাঠিয়ে দিবে। পরে ঐ কার্ড ও আপনি প্লে স্টোরে একাউন্ট করার জন্য ব্যবহার করতে পারবেন।

ডেভেলপার কনসোল দেখতে নিচের মতঃ

image


এখানে Add New Application এ ক্লিক করে নতুন অ্যাপ আপলোড করতে পারবেন। Add New Application এ ক্লিক করলে একটা পপ আপ ওপেন হবে। নিচের মতঃ

image 


অ্যাপ এর Title / Name দিয়ে Upload APK তে ক্লিক করলে আপনার এক্সপোর্ট করা APK ফাইলটি আপলোড করতে পারবেন। বা Prepare Store Listing এ ক্লিক করে অ্যাপ এর বিভিন্ন তথ্য আগে সেভ করে রাখতে পারবে। সকল তথ্য ঠিক মত দেওয়া হলে ডান কোনায় লেখা উঠবে Ready To Publish , এখানে কিক্ল করলেই অ্যাপটি গুগল ভ্যারিফাই করে প্লে স্টোরে এপ্রুভ করে দিবে। সাধারনত ৪-৫ ঘন্টার মধ্যেই অ্যাপটি গুগল রিভিউ করে প্লে স্টোরে এপ্রুভ করে।

সংগ্রহঃ jakir.me 
করেছেন (2,716 পয়েন্ট) 25 145 479
এপ্স থেকে কি ইনকাম হবে ?
করেছেন (2,776 পয়েন্ট) 96 254 373

না । প্লে স্টোরে আপনি বাংলাদেশ থেকে শুধু মাত্র ফ্রি অ্যাপ আপলোড করতে পারবেন। আর ফ্রি অ্যাপ থেকে কোন রেভিনিউ আসবে না। ফ্রি অ্যাপ বিভিন্ন ভাবে মানিটাইজ করা যায়। যেমন অ্যাড দিয়ে। আপনি অ্যাপে অ্যাড দিলে আপনার যে খান থেকে অ্যাড দিবেন, যেমন AdMobInMobi,MobFox সহ আরো অনেক। ঐ একাউণ্টে আপনার রেভিনিউ জমা হবে। গুগলের ডেভেলপার একাউণ্টে না ।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
19 জুলাই 2018 "অ্যান্ড্রয়েড" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন R.A.rupu SR(pl) (3,507 পয়েন্ট) 13 180 628

27,281 টি প্রশ্ন

28,972 টি উত্তর

3,087 টি মন্তব্য

2,210 জন সদস্য



আস্ক প্রশ্ন এমন একটি প্ল্যাটফর্ম, যেখানে কমিউনিটির এই প্ল্যাটফর্মের সদস্যের মাধ্যমে আপনার প্রশ্নের উত্তর বা সমস্যার সমাধান পেতে পারেন এবং আপনি অন্য জনের প্রশ্নের উত্তর বা সমস্যার সমাধান দিতে পারবেন। মূলত এটি বাংলা ভাষাভাষীদের জন্য একটি প্রশ্নোত্তর ভিত্তিক কমিউনিটি। বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার পাশাপাশি অনলাইনে উন্মুক্ত তথ্যভান্ডার গড়ে তোলা আমাদের লক্ষ্য।

  1. Sagor hossain

    214 পয়েন্ট

    59 উত্তর

    13 প্রশ্ন

  2. রবিউল ইসলাম রাবি

    65 পয়েন্ট

    5 উত্তর

    0 প্রশ্ন

  3. মোরশেদ খান

    60 পয়েন্ট

    4 উত্তর

    2 প্রশ্ন

  4. জুয়েল রানা

    58 পয়েন্ট

    22 উত্তর

    2 প্রশ্ন

  5. Samera Prokash

    53 পয়েন্ট

    1 উত্তর

    0 প্রশ্ন

শীর্ষ বিশেষ সদস্য

126 টি পরীক্ষণ কার্যক্রম
71 টি পরীক্ষণ কার্যক্রম
28 টি পরীক্ষণ কার্যক্রম
10 টি পরীক্ষণ কার্যক্রম
7 টি পরীক্ষণ কার্যক্রম
...