আস্ক প্রশ্নে আপনাকে স্বাগতম ! এটি একটি প্রশ্নোত্তর ভিত্তিক কমিউনিটি। এই সাইট সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন ...
4 বার প্রদর্শিত
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন (4,128 পয়েন্ট) 91 357 726

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (4,128 পয়েন্ট) 91 357 726

চিকেন পক্সের জন্য কিছু গৃহ চিকিৎসাঃ


১. বেকিং সোডা

বেকিং সোডা চামড়াকে পরিস্কার করে এবং পোড়ানি কমায়।

এক গ্লাস পানিতে আধা চা চামচ বেকিং সোডা গুলিয়ে নিন

আক্রান্ত ব্যাক্তিকে এই সলিউশন দিয়ে মুছে দিন

যখন বেকিং সোডা চামড়ার উপরে শুকিয়ে যাবে, চুলকানি বন্ধ হয়ে যাবে।


২. মধু

মধু ক্ষত সারিয়ে তুলতে এবং এর দাগ দূর করার ক্ষমতা আছে। মধু প্রয়োগ করলে ফোস্কা গুলি সেরে উঠবে এবং চুলকানি থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

দিনে ২ থেকে ৩ বার ক্ষতস্থানের শুকনা আবরণের উপর মধু মেখে দিন, ক্ষত দূর হয়ে যাবে।


৩. ওট মিল

চুলকানি চিকেন পক্সের সবচেয়ে বড় সমস্যা। ওট মিল দিয়ে গোসল চুলকানি থেকে মুক্তি দিতে পারে।

দুই কাপ ওট মিল চূর্ণ নিন

এক লিটার পানিতে এই চূর্ণ ১০ থেকে ১৫ মিনিট ধরে গুলে নিন।

এই মিশ্রণটি কাপড়ের ব্যাগে নিয়ে মুখ বেধে নিন।

ব্যাগটি গোসলের পানিতে ছেড়ে দিন এবং পানি দুধের মত সাদা দেখতে হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এই পানি দিয়ে গোসল করুন।


৪. সবুজ মটর দানা

মটর দানা চুলকানির কারণে পোড়ানি কমায়

২০০ গ্রাম সিদ্ধ সবুজ মটর দানা নিন

এগুলি বেটে একটি পেস্ট তৈরি করুন

এটি ফোস্কার উপরে মেখে এক ঘণ্টা রেখে দিন


৫. নিম

নিমের উচ্চ মাত্রার সংক্রমণ বিরোধী গুণাগুণ আছে এবং এটি চামড়ার বিভিন্ন রকমের সমস্যার চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়। নিমপাতা বাটা দিয়ে তৈরি পেস্ট চুলকানি কমায় এবং দ্রুত আরোগ্য করে।

নিমপাতা পানির সাথে মিশিয়ে বেটে পেস্ট তৈরি করে ফোস্কার উপর প্রয়োগ করুন।

১০ থেকে ১৫ মিনিট পরে এটি ধুয়ে ফেলুন।

নিমপাতার আগুনের ধোঁয়া বাতাসে উপস্থিত ভাইরাসকে মেরে ফেলতে সাহায্য করে। এ পদ্ধতি অন্য মানুষের কাছে এ রোগ ছড়িয়ে পরতে বাধা দেয়।

চুলকানি কমানোর জন্য নিমপাতা সিদ্ধ পানিও ব্যবহার করতে পারেন।


৬. হলুদ

হলুদেরও সংক্রমণ বিরোধী এবং ব্যাকটেরিয়া বিরোধী গুণাগুণ আছে। বিভিন্ন ভাবে আপনি হলুদ ব্যবহার করতে পারেনঃ

চুলকানি কমাতে এবং দ্রুত সেরে উঠতে ২-৩ চা চামচ হলুদ যুক্ত গরম পানি দিয়ে গোসল করতে পারেন।

চিকেন পক্সের কারণে ক্ষত নিরাময়ের জন্য আপনি হলুদ এবং নিমপাতা দিয়ে তৈরি পেস্ট ফোস্কার উপর প্রয়োগ করতে পারেন।


৭. বাদামী ভিনেগার

এটি সাধারণত চিকেন পক্সের জন্য একটি অন্যতম সবচেয়ে বেশী ব্যবহৃত চিকিৎসা

১/২ কাপ বাদামী ভিনেগার গোসলের জন্য মৃদু গরম পানিতে মিশিয়ে নিন।

পোড়ানি থেকে মুক্তি পেতে এবং সংক্রমিত ক্ষত সারিয়ে তুলতে এই পানি দিয়ে গোসল করুন।


৮. চন্দন কাঠের তেল

এটি চিকেন পক্সের নানারকম উপসর্গ চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়।

চিকেন পক্সের কারণে হওয়া ফোস্কার উপরে খাঁটি চন্দন কাঠের তেল মাখুন।

নিয়মিত চন্দন কাঠের তেল ব্যবহারে চিকেন পক্সের ক্ষতের দাগ দূর হয়।


৯. ভিটামিন ই তেল

চিকেন পক্সের চিকিৎসায় এবং এর ক্ষতের দাগ সারিয়ে তুলতে এটি আরেকটি কার্যকর চিকিৎসা।

ত্বকের উপর ভিটামিন ই তেল মাখুন।

এটি চিকেন পক্সের ফোস্কা এবং এর চিহ্ন গুলির নিরাময়েও সাহায্য করে।


১০. ভেষজ চা

চিকেন পক্স নিরাময়ের জন্য প্রয়োজনীয় নির্দিষ্ট উপাদান গুলি দিয়ে তৈরি ভেষজ চা পান করলে তা এর নিরাময়ে বেশ কার্যকর হয়।

পুদিনা, ক্যামোমিল, ম্যারিগোল্ড ফুল বা লেমন বাল্ম জাতীয় ভেষজ উপাদান দিয়ে চা তৈরি করুন।

এর সাথে ১/৪ চা চামচ দারুচিনির গুঁড়া, ১ চা চামচ মধু এবং ১ চা চামচ লেবুর রস যোগ করুন।

এভাবে তৈরি চা দৈনিক ৩ থেকে ৪ বার পান করলে সংক্রমণ জাতীয় ক্ষত দ্রুত নিরাময় হয়।


১১. আদা

আদার যে ব্যাকটেরিয়া বিরোধী গুণাগুণ আছে তা চুলকানি কমায়।

আপনার গোসলের পানিতে ২-৩ চা চামচ আদা চূর্ণ মিশিয়ে নিন।

আপনি আদা দিয়ে তৈরি পানীয় পান করতে পারেন। আদা ছোট ছোট টুকরা করে কাপে নিয়ে পাঁচ মিনিট ধরে ফুটান এবং এর সাথে ১ চা চামচ মধু মেশান।

দ্রুত নিরাময়ের জন্য এই মিশ্রণ পান করুন।


১২. Calamine লোশন

Calamine লোশন চুলকানি দূর করে।

গরম পানি দিয়ে গোসল করুন এবং শরীর শুকিয়ে নিন।

ত্বকের উপরে Calamine লোশন মাখুন।

ভাল ফলাফল পাওয়ার জন্য দিনে ২-৩ বার এ চিকিৎসাটি বার বার করুন।


১৩. মসলা এবং তেলের আধিক্য যুক্ত খাবার পরিহার করুন

আপনার মুখের মধ্যে যদি সংক্রমণ জনিত ক্ষত থাকে তবে মসালা যুক্ত খাবার বিশেষভাবে পরিহার করুন। মসলা এবং তেল যুক্ত খাবার লালা নিঃসরণের পরিমাণ বাড়াতে পারে যা ক্ষতের সংক্রমণকে আরও খারাপ পর্যায়ে নিয়ে যেতে পারে।

কম স্বাদের, তেল কমযুক্ত খাবার ক্ষত স্বাভাবিক পর্যায়ে না আসা পর্যন্ত অন্তত দশ থেকে পনের দিন যাবত খেতে থাকুন।


১৪. গাজর এবং ধনিয়ার স্যুপ

১০০ গ্রাম গাজর এবং ৬০ গ্রাম ধনে পাতা কেটে নিন।

দুই কাপ ফুটন্ত পানিতে এগুলি কিছুক্ষণের জন্য দিন। এখন এগুলি তুলে ফেলে অবশিষ্ট টুকু স্যুপ হিসাবে পান করুন। চিকেন পক্স কার্যকরভাবে নিরাময়ের জন্য কয়েকদিন এরকম ভাবে চালিয়ে যান।


১৫. পরিপূর্ণ বিশ্রাম নিন

কার্যকর ভাবে চিকেন পক্স নিরাময়ের জন্য বিশ্রাম খুবই প্রয়োজনীয়।

শান্ত, বাতাস চলাচল যুক্ত ঘরে দিনের বেশীর ভাগ সময় বিছানায় শুয়ে কাটান যাতে আপনি চিকেন পক্স থেকে কার্যকর ভাবে মুক্তি পেতে পারেন।

সূর্যালোক এবং যন্ত্রণাদায়ক আলো যেন চোখে না পরে তা নিশ্চিত করুন। কিন্তু এমন ঘরে থাকুন যেখানে উত্তম রূপে বাতাস চলাচল করে।


কামরুল হাসান ফরহাদ, বিশেষজ্ঞ হিসেবে অন্তর্ভুক্ত আছেন প্রশ্ন ডট কমের সাথে। নিজের সমস্যার সমাধানের পন্থা নিজেই খুঁজে বের করে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে ভালোবাসেন। প্রশ্ন অ্যানসারকে ভালোবেসে নিয়েছেন নিজে জানার ও অপরকে জানানোর জন্য।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
10 সেপ্টেম্বর "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন কামরুল হাসান ফরহাদ (4,128 পয়েন্ট) 91 357 726
1 উত্তর
13 সেপ্টেম্বর "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন কামরুল হাসান ফরহাদ (4,128 পয়েন্ট) 91 357 726
1 উত্তর
13 সেপ্টেম্বর "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন কামরুল হাসান ফরহাদ (4,128 পয়েন্ট) 91 357 726
1 উত্তর
13 সেপ্টেম্বর "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন কামরুল হাসান ফরহাদ (4,128 পয়েন্ট) 91 357 726
1 উত্তর

23,701 টি প্রশ্ন

24,698 টি উত্তর

3,088 টি মন্তব্য

1,936 জন সদস্য



আস্ক প্রশ্ন এমন একটি প্ল্যাটফর্ম, যেখানে কমিউনিটির এই প্ল্যাটফর্মের সদস্যের মাধ্যমে আপনার প্রশ্নের উত্তর বা সমস্যার সমাধান পেতে পারেন এবং আপনি অন্য জনের প্রশ্নের উত্তর বা সমস্যার সমাধান দিতে পারবেন। মূলত এটি বাংলা ভাষাভাষীদের জন্য একটি প্রশ্নোত্তর ভিত্তিক কমিউনিটি। বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার পাশাপাশি অনলাইনে উন্মুক্ত তথ্যভান্ডার গড়ে তোলা আমাদের লক্ষ্য।

  1. অা ক ম আজাদ

    1100 পয়েন্ট

    472 উত্তর

    359 প্রশ্ন

  2. Sajjad Jayed

    1077 পয়েন্ট

    519 উত্তর

    506 প্রশ্ন

  3. Md.Rasel Ahmed

    923 পয়েন্ট

    396 উত্তর

    251 প্রশ্ন

  4. S.S.D

    686 পয়েন্ট

    239 উত্তর

    87 প্রশ্ন

  5. কামরুল হাসান ফরহাদ

    623 পয়েন্ট

    318 উত্তর

    335 প্রশ্ন

শীর্ষ বিশেষ সদস্য

124 টি পরীক্ষণ কার্যক্রম
93 টি পরীক্ষণ কার্যক্রম
34 টি পরীক্ষণ কার্যক্রম
31 টি পরীক্ষণ কার্যক্রম
27 টি পরীক্ষণ কার্যক্রম
...