আস্ক প্রশ্নে আপনাকে স্বাগতম ! এটি একটি প্রশ্নোত্তর ভিত্তিক কমিউনিটি। এই সাইট সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন ...
161 বার প্রদর্শিত
"ইসলাম ধর্ম" বিভাগে করেছেন (7,782 পয়েন্ট) 444 1371 2441
হযরত মুহাম্মদ সঃ কি মাটির তৈরী? নাকি নূরের তৈরী?

2 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (386 পয়েন্ট) 7 22 69
সম্পাদিত করেছেন

হযরত মুহাম্মদ (স:) মাটির তৈরি।

আল্লাহ বলেন, ‘(হে নবী!) ‘তুমি বলে দাও, নিশ্চয়ই আমি তোমাদের মত একজন মানুষ মাত্র। (পার্থক্য হ’ল) আমার নিকট ‘অহি’ করা হয় ...’ (কাহ্ফ ১৮/১১০) । এটা কেবল আমাদের নবীই নন, বরং বিগত সকল নবীই স্ব স্ব কওমের উদ্দেশ্যে একথা বলেছিলেন, ‘নিশ্চয়ই আমরা তোমাদের মত মানুষ মাত্র’ (ইবরাহীম ১৪/১১) । রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, ‘আমি তো একজন মানুষ। আমিও তোমাদের মত ভুলে যাই। সুতরাং আমি (ছালাতে কিছু) ভুলে গেলে তোমরা আমাকে স্মরণ করিয়ে দিয়ো’ (বুখারী হা/৪০১; মুসলিম হা/৫৭২; মিশকাত হা/১০১৬ ‘সিজদায়ে সহো’ অনুচ্ছেদ) । তিনি বলেন, আমি একজন মানুষ। আমি তোমাদের দ্বীনের ব্যাপারে কোন কিছু আদেশ করলে তা গ্রহণ করবে। আর নিজস্ব রায় থেকে কিছু বললে আমি একজন মানুষ মাত্র। অর্থাৎ সে ক্ষেত্রে আমার ভুলও হ’তে পারে (মুসলিম হা/২৩৬৫, মিশকাত হা/১৪৭) । বস্ত্ততঃ ফেরেশতারা হ’ল নূরের তৈরী, জিনেরা আগুনের তৈরী এবং মানুষ হ’ল মাটির তৈরী মুসলিম হা/২৯৯৬; মিশকাত হা/৫৭০১; মুমিনূন ২৩/১২, আন‘আম ৬/২) । উল্লেখ্য যে, রাসূল (ছাঃ) নূরের তৈরী ছিলেন মর্মে সমাজে কিছু হাদীছ প্রচলিত রয়েছে। যেমন ‘আল্লাহ সর্বপ্রথম আমার নূর সৃষ্টি করেন’। এ মর্মে বর্ণিত সব বর্ণনাই জাল (‘আজলূনী, কাশফুল খাফা হা/৮২৭; ছহীহাহ হা/৪৫৮- এর আলোচনা দ্রষ্টব্য) । সূরা মায়েদাহ ১৫ আয়াতে বলা হয়েছে, ﻗَﺪْ ﺟَﺎﺀَﻛُﻢْ ﻣِﻦَ ﺍﻟﻠﻪِ ﻧُﻮْﺭٌ ﻭَﻛِﺘَﺎﺏٌ ﻣُﺒِﻴْﻦٌ ‘তোমাদের কাছে এসেছে একটি জ্যোতি এবং একটি সমুজ্জ্বল গ্রন্থ’। উক্ত আয়াতে ‘নূর’ বা জ্যোতি দ্বারা কুরআনকে বুঝানো হয়েছে। অর্থাৎ কুরআন শিরকের অন্ধকার হ’তে মানুষকে তাওহীদের আলোর পথে বের করে আনে। এখানে ‘ওয়া কিতাবুম মুবীন’ ‏(ﻭَﻛﺘﺎﺏٌ ﻣﺒﻴْﻦٌ‏) তার পূর্ববর্তী ‘নূর’ ‏( ﻧُﻮْﺭٌ‏) -এর উপর ﻋﻄﻒ ﺑﻴﺎﻥ হয়েছে। অর্থাৎ আল্লাহ বলছেন, ‘তোমাদের কাছে আল্লাহর নিকট থেকে এসেছে একটি জ্যোতি ও সমুজ্জ্বল গ্রন্থ’। যেমন ইতিপূর্বে সূরা নিসা ১৭৪-৭৫ আয়াতে ﺑُﺮْﻫَﺎﻥٌও ﻧُﻮْﺭًﺍ ﻣُﺒِﻴْﻨًﺎ বলে কুরআনকে বুঝানো হয়েছে। অমনিভাবে সূরা আ‘রাফ ১৫৭ আয়াতের কুরআনকে ‘নূর’ বলা হয়েছে। উক্ত আয়াতের তাফসীরে ‘নূর’-এর ব্যাখ্যায় যাজ্জাজ বলেন, এখানে মুহাম্মাদ (ছাঃ)-কে বুঝানো হয়েছে (কুরতূবী) । যদি সেটাই ধরে নেওয়া হয়, তাহ’লেও এর অর্থ এই নয় যে, মুহাম্মাদ (ছাঃ) নূরের তৈরী ছিলেন। কারণ কুরআনেই বলা হয়েছে যে, তিনি তোমাদের মত মানুষ ছিলেন’ (কাহফ ১৮/১১০) । আর মানুষ বলেই তো তিনি পিতা-মাতার সন্তান ছিলেন এবং সন্তানের পিতা ছিলেন। তিনি খানা-পিনা ও বাজার- ঘাট করতেন। অতএব রাসূল (ছাঃ) যে মাটির তৈরী মানুষ ছিলেন, এতে কোন সন্দেহের অবকাশ নেই।

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (6,114 পয়েন্ট) 150 629 1420
রাসুল (সাঃ) নুরের তৈরি ।
করেছেন (7,782 পয়েন্ট) 444 1371 2441
প্রথম উত্তরটিতে রেফারেন্স দেয়া হয়েছে।আপনার উত্তরটি যেহুতু ভিন্ন তাই উত্তরের পক্ষে রেফারেন্স দিতে হবে।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
25 অক্টোবর 2018 "ইসলাম ধর্ম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন শামীম মাহমুদ (7,782 পয়েন্ট) 444 1371 2441
1 উত্তর
20 মে 2018 "ইসলাম ধর্ম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন At Munna (1,666 পয়েন্ট) 33 253 864
1 উত্তর
11 নভেম্বর 2018 "ইসলাম ধর্ম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন ALADIN (1,231 পয়েন্ট) 24 109 223
1 উত্তর
25 অক্টোবর 2018 "ইসলাম ধর্ম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন শামীম মাহমুদ (7,782 পয়েন্ট) 444 1371 2441

27,494 টি প্রশ্ন

29,278 টি উত্তর

3,122 টি মন্তব্য

2,365 জন সদস্য



আস্ক প্রশ্ন এমন একটি প্ল্যাটফর্ম, যেখানে কমিউনিটির এই প্ল্যাটফর্মের সদস্যের মাধ্যমে আপনার প্রশ্নের উত্তর বা সমস্যার সমাধান পেতে পারেন এবং আপনি অন্য জনের প্রশ্নের উত্তর বা সমস্যার সমাধান দিতে পারবেন। মূলত এটি বাংলা ভাষাভাষীদের জন্য একটি প্রশ্নোত্তর ভিত্তিক কমিউনিটি। বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার পাশাপাশি অনলাইনে উন্মুক্ত তথ্যভান্ডার গড়ে তোলা আমাদের লক্ষ্য।

  1. Nijhum

    82 পয়েন্ট

    11 উত্তর

    1 প্রশ্ন

  2. সাদিহা জাহান মিম

    68 পয়েন্ট

    4 উত্তর

    0 প্রশ্ন

  3. Marzan Akter

    58 পয়েন্ট

    3 উত্তর

    1 প্রশ্ন

  4. Prince jaminur

    55 পয়েন্ট

    2 উত্তর

    1 প্রশ্ন

  5. ehp

    53 পয়েন্ট

    1 উত্তর

    0 প্রশ্ন

শীর্ষ বিশেষ সদস্য

59 টি পরীক্ষণ কার্যক্রম
16 টি পরীক্ষণ কার্যক্রম
1 টি পরীক্ষণ কার্যক্রম
...